সুখ বন্দনা পাত্র

সুখ

শরীর ক্লান্ত, মন বিষণ্ণ
একটু বিশ্রাম প্রয়োজন,
রাত যত বাড়ে বিশ্রাম নেই
মস্তিষ্ক, হৃদপিন্ডের—
অমূল্য সময় সিন্দুকে বন্দী
কবেকার সেই সুখ।
মরণের আগে কঠিনকে ভালোবেসে
চলে যাব বহুদূরে—
অসীম আকাশে,
খাদ্য, পানীয় সকল ওই পারে
দূরে বিশ্রামাগারে।
নক্ষত্রের মিটিমিটি চোখ খোলে
মানবচক্ষুর অফুরান জলে—।
অন্তবিহীন চেনা পথে
ম্লান পৃথিবী থেকে
অজানা এক শান্তির গৃহে
সুখ খুঁজে করব বাস—,
নক্ষত্র চেয়ে রবে
এ কেমন মৃত্যুর পরিহাস!
জগৎ থেকে দূরে ওই দূরে
যেথা মরণের বসবাস।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top