জ্ঞান দেবেন না

#জ্ঞানদেবেননা
#শম্পা_সাহা

অনেকেই বিষন্নতা নিয়ে গল্প লেখে‌ন।বিষন্নতা,ডিপ্রেশন যার পোশাকি নাম এখন আধুনিকতার দৌলতে প্রায় সবারই জানা।

কেউ কেউ একে নিয়ে সিমপ‍্যাথি দেখান।বলেন আহা!আবার কেউ কেউ নানান টোটকা বাতলান ডিপ্রেশন থেকে বেরিয়ে আসবার।

কেউ কেউ আবার একে বড়লোকের ঘোড়া রোগ ও বলেন মানে দুঃখবিলাস।বলেন,সত‍্যি যদি জীবনে কাজ থাকতো,সমস্যা থাকতো,দুঃখ থাকতো তাহলে আর আমার দুঃখ আমার দুঃখ করে কাঁদার সময় পেত না।

আচ্ছা যারা এসব বলেন বা ভাবেন তারা কি কোনোদিন ডিপ্রেশনে ভুগেছেন?না মানে নিজে নিজে,”আমি ডিপ্রেশনে আছি”,বলা পাবলিকদের কথা বলছি না।যাদের ডাক্তার বাবু ডায়াগনোসিস করে বলেছেন তিনি ডিপ্রেশনের শিকার তিনি কি এই কথাগুলো বলতে পারেন? পারেন না।আমি নিশ্চিত টোটকা দিয়ে আর যাই হোক ডিপ্রেশন সারে না!অন্তত আমার অভিজ্ঞতা তো তাই বলে।

যারা এসব নিয়ে খিল্লি করেন তাদের কোনদিন ঘুম থেকে উঠে মনে হয়েছে কেন সকাল হলো? অন্ধকারই ভালো ছিল? তারা কি সারাদিন দাপিয়ে বেড়িয়েছেন একটা মানুষের নাম মনে করতে যার সঙ্গে দুদন্ড কথা বলা যায়? তারপর সারাদিন ভেবেও মনমতো একটাও নাম পাননি!

একটা চুড়ান্ত খারাপ লাগা সেটা যে আসলে কি বলে বোঝানো যাবে না কিন্তু ভয়ংকর নৈঞর্থক কিছু!যা আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে আছে প্রতিটা মুহুর্ত!

এবং এই অভিজ্ঞতা দিনের পর দিন হতে হতে শেষ পর্যন্ত বিছানায় চুপচাপ অসাড়ে শুয়ে থেকেছেন?কিছু ভাববার পর্যন্ত ইচ্ছে হয়নি! এমনকি চূড়ান্ত হাসির কথাতেও হাসির কিছু খুঁজে পাননি, বিরক্ত হতেও ইচ্ছে করেনি!

নিজের মানুষ, প্রিয়জন কে চেয়েছেন। যে এসে একটু পাশে বসলে হয়তো ভালো লাগবে ভেবেছেন।কিন্তু সেই মানুষটা কে এটা ভেবে বের করতে পারেননি।

উদ্দেশ্যে হীন বেঁচে থাকা কাকে বলে জানেন? বেঁচে আছি তাই বেঁচে আছি এই অনুভূতিটা বোঝেন? যে মানুষটার সঙ্গে একসময় ভীষণ কথা বলতে ইচ্ছে করতো আজ সে ফোন করলেও যখন কথা বলতে ইচ্ছে করে না,একটা শব্দ উচ্চারণ করতেও কষ্ট হয়,ভয়ংকর এক শূণ‍্যতার মধ্যে ডুবে আছেন মনে হয়।সব কিছু মিনিংলেস,ওয়ার্দলেস মনে হয়।সব ফালতু, বাজে অকারণ মনে হয় আর সব থেকে অকারণ মনে হয় নিজেকে, এই অনুভব গুলো আপনার আছে তো?

যখন ডাক্তার ডোজের পর ডোজ শুধু বাড়িয়েই যান আর আপনি প্রথম কদিন ওই ওষুধ খেয়ে কিছুটা রেহাই পেলেও আবার যে কে সেই!আপনার চারিপাশে প্রতিটা মানুষ ঘুমোচ্ছে আর আপনি ডাক্তারের কথা মত ওষুধ খেয়ে,গান শোনা,মেডিটেশন সব করতে চেয়েও পারছেন না বা করলেও কিছুতেই বেরোতে পারছেন না সেই অন্ধকার থেকে! শরীর ক্লান্ত, অসাড়,চোখ বোঝা অথচ মাথাটা জেগে আছে ভীষন ভাবে!এ অনুভূতি আপনার আছে তো?

যদি থাকে তো ডিপ্রেশন নিয়ে কথা বলুন, না হলে অযথা জ্ঞান দেবেন না। জানেন তো ,”কি যাতনা বিষে,বুঝিবে সে কিসে? কভু আশীবিষে দংশেনি যারে!”

©®

Facebook Comments Box
SHARE NOW

inbound8825058714950763847.jpg

শম্পা সাহা

>
Scroll to Top
%d bloggers like this: