দস্যিবেলা

দস্যিবেলা
––
সুমিত মোদক

আমি তখন দস্যিছেলে ;
আমি তখন খেলার আনন্দে ধরেছি গিরগিটি ;
যে গিরগিটি রঙ বদলে নিতে পারে ;
সারা শরীরের রঙ …
কখনও রঙ বদলে মিশে যেতে পারে পাতার আড়ালে ,
ফুলের রঙে ,
কখনও বা , গাছের বাকলে …
গিরগিটি রঙ বদলায় ;

আমরা তখন দস্যিছেলে ;
আমরা তখন নারিকেল পাতা ছিঁড়ে কাঠিটা বার করে নিতাম ;
তার পর , সেটার সামনের লকলকে অংশটা দিয়ে ফাঁস করা হতো ;
নারিকেল কাঠির ফাঁস ;
আমরাও ওঁৎ পেতে থাকতাম , গিরগিটি ধরার জন্য ;
সে যতই রঙ বদলাক না কেনো ঠিক চেনা যেতো ;
বিশেষ করে যখন শিকারের জন্য জিভটা বার করতো ;
ঠিক সময় বুঝে নারকেল কাঠির ফাঁসটা লাগিয়ে দিতাম গলায় ;
সে যতই ছটফট করতো ততই ফাঁসটা চেপে বসতো গলায় ;
ফাঁসের ওপর প্রান্তে আমাদের হাত তখন শক্ত , দৃঢ় ;
একটা সময় যখন ক্লান্ত হয়ে পড়তো ,
অবস হয়ে পড়তো ,
তখনই ফাঁস খুলে ছেড়ে দিতাম …

আজকাল আশেপাশের লোকজনকে দেখলে
সেই দস্যিবেলার কথা মনে পড়ে ;
মনে পড়ে রঙ বদলানো গিরগিটির কথা ,
নারিকেল কাঠির ফাঁসের কথা ,
আরও অনেক কথা ……… দস্যিপনা ;

আমার ভিতরে ,
আমাদের ভিতরে
আজও বেঁচে আছে সে দস্যিছেলে ।।

Facebook Comments Box
SHARE NOW

inbound741970104250471954.jpg

সুমিত মোদক

>
Scroll to Top
%d bloggers like this: